আপনি পীথাগোরাসের উপপাদ্য জানেন, কিন্তু পীথাগোরাস সম্পর্কে কতটুকু জানেন?

গণিত ভালোবাসেন কিংবা বাসেন না, আপনি যেটিই করে থাকুন না কেন, পীথাগোরাসের নাম অবশ্যই শুনেছেন। পীথাগোরাসের উপপাদ্য পড়েন নি এস এস সির গণিতে এমন মানুষ খুব কম পাওয়া যাবে। গণিতের বিভিন্ন শাখায় পীথাগোরাসের অবদান অনস্বীকার্য। আজ এই মহান গণিতবিদের কিছু তথ্য নিয়ে আয়োজনঃ

১) পীথাগোরাস ৫৬০ বি সি তে জন্মগ্রহণ করেন (যীশুর জন্মের ৫৬০ বছর আগে)

২) পীথাগোরাস যে দ্বীপে জন্মগ্রহণ করেন তার নাম ছিল সামোস। পীথাগোরাস ছোটবেলা থেকেই ভ্রমণের প্রতি অনেক আগ্রহী ছিলেন। ঈজিপ্ট, মেসোপটেমিয়াসহ নানা দেশ তিনি ভ্রমণ করেন ও জ্ঞান সংগ্রহ করেন।

৩) পীথাগোরাস অব সামোস কিংবা পীথাগোরাস অব সামিয়ান নামেও তাকে ডাকা হয়।

৪) পীথাগোরাস ৫৩০ বি সিতে যখন ক্রোটন নামক দ্বীপে যান, সেখানে তিনি দীক্ষা দিতে শুরু করেন। দক্ষিণ ইটালির যেখানে গ্রীক কলোনি ছিল সেখানে তিনি ধর্মীয় শিক্ষা ও গণিতের চর্চা করেন।

৫) ক্রোটনে তিনি “থিয়ানো” নামক এক মহিলাকে স্ত্রী হিসেবে গ্রহণ করেন এবং তারা দার সন্তানের জনক জননী হন।

৬) পীথাগোরাসের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজের লিখিত দলিল কালের গর্ভে হারিয়ে গিয়েছে।

৭) পীথাগোরিয়ান থিওরেমের প্রবকা হলেন পীথাগোরাস।

৮) পীথাগোরাস বিশ্বাস করতেন ধর্ম ও বিজ্ঞান পরস্পর সম্পর্কযুক্ত। তার এই চিন্তাধারায় গ্রীসের অনেক অঞ্চলে নানা পরিবর্তন আসে।

৯) পীথাগোরিয়ান কাপ বা পীথাগোরিয়ান পেয়ালা তৈরি করেন পীথাগোরাস।

১০) এটি এমন এক ধরণের পেয়ালা যেখানে একজন ব্যক্তি তার ইচ্ছামত পানীয় পান করতে পারবে না। তাকে একটি নির্দিষ্ট সীমানা পর্যন্ত পানীয় পান করতে হবে যা ঐ পেয়ালায় ঠিক করে দেয়া আছে। যদি ব্যক্তিটি লোভী হয় এবং পেয়ালায় বেশি পরিমাণ পানীয় ঢালে, তাহলে তার পানীয় নিচে পরে যাবে।

Add a Comment